সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশীরা অনলাইনেই পাবেন সব সেবা

KSA Consulate

ডেস্ক রিপোর্ট
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের দূতাবাসের প্রয়োজনীয় সেবা অনলাইনে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

ইকামার মেয়াদোত্তীর্ণ অথবা যাদের নামে কর্মে অনুপস্থিতির মামলা (হুরুব) রয়েছে, কিন্তু দেশে ফিরতে ইচ্ছুক, এমন প্রবাসীদের জন্য অনলাইনে স্পেশাল এক্সিট সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে রাষ্ট্রদূত এই কথা বলেন।

রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু চত্বরে এ সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। এসময় সেবা নিতে আসা কয়েকশ অভিবাসী ও দূতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রদূত বলেন, সৌদি আরবের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসরত প্রবাসী যাদের ইকামার মেয়াদ উত্তীর্ণ অথবা যাদের নামে কর্মে অনুপস্থিতির মামলা রয়েছে তারা দেশে ফিরতে চাইলে বাংলাদেশ দূতাবাসের ওয়েবসাইটে bangladeshembassy.org.sa প্রবেশ করে আবেদন করতে পারবেন। আবেদনের পর যে কেউ তার আবেদনের আপডেটও দেখে নিতে পারবেন। এছাড়া ওয়েবসাইটে অন্যান্য সেবার জন্যও আবেদন করা যাবে।

তিনি বলেন, সৌদি আরবের প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিভিন্ন শহরে দূর-দূরান্তে বসবাস করেন। তাদের কষ্ট করে এসব সেবার জন্য আর দূতাবাসে আসার প্রয়োজন হবে না। সৌদি আরবের বিভিন্ন শহরে স্থাপিত প্রবাসী সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমেও প্রবাসীদের পাসপোর্টসহ বিভিন্ন জরুরি সেবা নিয়মিত দেয়া হচ্ছে।

ইকামার মেয়াদোত্তীর্ণ অথবা যাদের নামে কর্মে অনুপস্থিতির মামলা রয়েছে দেশে ফিরতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের এর আগে সশরীরে দূতাবাসে এসে আবেদন জমা দিতে হতো, অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু করায় এখন আর দূতাবাসে আসার প্রয়োজন হবে না।

এই সেবাটি উদ্বোধনের পর দূতাবাসের শ্রম কল্যাণ উইংয়ের পক্ষ থেকে দেশে ফিরতে ইচ্ছুক প্রবাসীদের অনলাইনে আবেদনের জন্য সহায়তা করা হয়। অনুষ্ঠানে অনলাইনে আবেদন ও আপডেট জানার বিষয়ে একটি টিউটোরিয়ালও দেখানো হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন দূতাবাসের শ্রম কল্যাণ উইংয়ের কাউন্সেলর মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান। অনুষ্ঠান শেষে সৌদি আরব প্রবাসী, দেশ ও জাতির সার্বিক মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, দূতাবাসের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে ১৬ হাজার ৮৬১ জন মেয়াদোত্তীর্ণ ইকামাধারী ও ১১ হাজার ৬৯৮ জন কর্মে অনুপস্থিতির মামলা থাকা প্রবাসীকে স্পেশাল এক্সিট প্রোগ্রামের আওতায় এ সেবা দেয়া হয়েছে।

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।