বড় ভাইয়ের স্কুলপড়ুয়া প্রেমিকাকে অপহরণ করে বিয়ে করলো ছোট ভাই

বড় ভাইয়ের স্কুলপড়ুয়া প্রেমিকাকে অপহরণ করে বিয়ে করলো ছোট ভাই

সারাদেশ ডেস্ক
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীর সাথে প্রেম ছিল চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের ফয়সাল নামের এক যুবকের। সেই নাবালক ছাত্রীকে অপহরণ করে বিয়ে করেন ফয়সালের ছোট ভাই ফরহাদ। অপহরণের আটদিন পর র‍্যাব সেই ফরহাদকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার হওয়া মো. ফরহাদ (২২) সন্দ্বীপ উপজেলার মুছাপুর গ্রামের মাহফুজুর রহমানের ছেলে।

শনিবার রাত আড়াইটার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানাধীন কানন আবাসিক এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার।

তিনি জানান, গত ১২ ফেব্রুয়ারি নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রী করোনার ভ্যাকসিন দেয়ার জন্য স্কুলে যায়। স্কুল থেকে ওই ছাত্রী বাসায় ফিরে না আসলে তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেন পরিবারের সদস্যরা। একপর্যায়ে জানতে পারেন ফরহাদ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীর মা সন্দ্বীপ থানায় দুই ভাইকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। শনিবার গোপন সংবাদের ভিতিতে বায়েজিদ থানার কানন আবাসিক এলাকা থেকে ফরহাদকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় অপহৃত শিক্ষার্থীকেও উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, ফয়সাল ও ফরহাদ দুই ভাই। ওই ছাত্রীর সাথে মোবাইলে ফয়সাল প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। গত ১২ ফেব্রুয়ারি টিকা দেয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে ফয়সালের কথামতো ওই শিক্ষার্থী ফরহাদের সাথে চট্টগ্রাম আসে। ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ে করার কথা ছিল ফয়সালের। এর মধ্যে পুলিশ ফয়সালকে গ্রেপ্তার করে।

পরে ফয়সাল ও তার পরিবার ফরহাদকে ফিরিয়ে নিয়ে আসতে বলে। কিন্তু ফরহাদ তাকে নিয়ে উল্টো হাটহাজারীর আদর্শগ্রামের পাহাড়ি সন্দ্বীপপাড়ার একটি বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে ছলিমপুরের এক কাজীর মাধ্যমে তাকে বিয়ে করে।

গ্রেপ্তার ফরহাদ ও উদ্ধার হওয়া শিক্ষার্থীকে সন্দ্বীপ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ