মোটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে তিন বন্ধুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মোটরসাইকেলে ঘুরতে গিয়ে তিন বন্ধুর মর্মান্তিক মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

রাজধানীর রূপনগর বেড়িবাঁধে পিকআপ গাড়ির ধাক্কায় তিনজন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রূপনগর বেড়িবাঁধে সাদি পেট্রল পাম্পের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন মিলন হোসেন (২২), হারুন (১৭) ও শামিম হোসেন (১৮)। নিহতদের মধ্যে ঘটনাস্থলে মারা যান হারুন। আহত অবস্থায় শামিম ও মিলনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক সাড়ে ৬টার দিকে মিলনকে মৃত ঘোষণা করেন এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শামিম।

তাদের দুজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা বন্ধু হাছান জানান, মিলন ফুডপান্ডায় খাবার সরবরাহের কাজ করতেন। হারুন ও শামিম মোটর গ্যারেজে কাজ করতেন। শুক্রবার বিকালে তিন বন্ধু মিলে মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে বের হয়। পরে জানতে পারি রূপনগর বেড়িবাঁধে পিকআপের ধাক্কায় আহত হয়েছে তিনজন। ঘটনাস্থলে গিয়ে হারুনকে মৃত অবস্থায় পেয়েছি।

হাছান জানান, মিলন ও শামিমকে আহত অবস্থায় প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে মারা যায় মিলন। আর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শামিম।

নিহত মিলনের চাচা মো. জামাল হোসেন জানান, তাদের বাড়ি ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া থানা এলাকায়। মিলনের বাবার নাম সোবহান মিয়া। বর্তমানে মিরপুর ১ উত্তর বিশিল তিন নম্বর রোডে থাকত মিলন। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে মিলন ছিল বড়। মিলন ফুডপান্ডায় খাবার সরবরাহের কাজ করতো। বিকালে মোটরসাইকেল নিয়ে বন্ধুদের সঙ্গে বের হয়।

দুজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, মিলন সাড়ে ৬টার দিকে মারা যায়। শামিম চিকিৎসাধীন পৌনে ৮টার দিকে মারা যায়। লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

রূপনগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন জানান, রূপনগরে বেড়িবাঁধ এলাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় হারুন নামে একজন ঘটনাস্থলে মারা গেছে। বাকি দুজন ঢামেক হাসপাতালে মারা গেছে। মিলনের বিস্তারিত ঠিকানা পাওয়া গেলেও বাকি দুজনের ঠিকানা পাওয়া যায়নি। দুর্ঘটনার প্রকৃত কারণ জানার চেষ্টা চলছে।

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।