ইমরান খানকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে, ‘নিরাপদ স্থানে’ রাখা আছে হত্যাচেষ্টার ভিডিও!

ইমরান খানকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে, ‘নিরাপদ স্থানে’ রাখা হয়ে হত্যাচেষ্টার ভিডিও!

বিশ্ব ডেস্ক
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিরোধী দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান শনিবার দাবি করেছেন, তাকে হত্যারচেষ্টা চালানো হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, এ সংক্রান্ত একটি ভিডিও নিরাপদ স্থানে রাখা হয়েছে।

শনিবার শিয়ালকোটে এক জনসমাবেশে ভাষণ দেয়ার সময় তিনি এই চমকপ্রদ দাবি করেন।

ইমরান খান তার সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, তার জীবননাশের চেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, একটি ভিডিওতে এই ষড়যন্ত্রে জড়িত সবকিছুর কথা আমি উল্লেখ করেছি। আমি এটি সম্পর্কে জানতাম এবং কয়েকদিন আগে এটা সম্পর্কে পুরোপুরি পরিষ্কার হয়েছি।

ভিডিও রেকর্ড করে রাখার কারণ সম্পর্কে ইমরান খান বলেন, যদি আমার কিছু হয়ে যায়, আমি চাই দেশবাসী এটা জানুক যে, দেশের ভেতরে ও বাইরে কারা এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত ছিল।

ইমরান খান বলেন, ওই ভিডিওতে দেশের লুটেরাদের সঙ্গে কারা ষড়যন্ত্রে জড়িত তা তিনি ফাঁস করতে চেয়েছেন। তার দাবি, এই ভিডিও সব দেশদ্রোহীর মুখোশ খুলে দেবে এবং তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কার কী ভূমিকা, তা বেরিয়ে আসবে।

তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রকারীরা ইমরান খানকে তাদের পথের বাধা মনে করে এবং তাই আমাকে সরিয়ে দেয়া প্রয়োজন তাদের। আর এ কারণেই আমি এই ভিডিও ধারণ করেছি। আমি মনে করি- এটা জিহাদ, রাজনীতি নয়। আমি চাই আমার সঙ্গে যদি কিছু ঘটে যায়, তবে এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে কারা জড়িত, তা যেন সব পাকিস্তানি জানতে পারেন।

ইমরান খান বলেন, দেশকে লুণ্ঠনকারী ও লুটেরাদের হাত থেকে মুক্ত করতে তিনি জাতির জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছেন। তার দলকে সমাবেশ থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করা হয়েছে বলেও কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন তিনি।

সমর্থকদের তিনি বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালীন তার দল কখনোই তাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষদের বিক্ষোভ করতে বাধা দেয়নি।
সূত্র: এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ