মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয় যেভাবে

অবশেষে ধরা পড়লেন হেফাজত নেতা মামুনুল হক

ডেস্ক রিপোর্ট
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

আগেই জানা হয়ে গিয়েছিল, রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রহমানিয়া মাদ্রাসায় অবস্থান করছেন হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক। ওই তথ্যের ভিত্তিতে থানা পুলিশ ও ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যৌথ অভিযানে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর তাকে কড়া পাহারায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও জোনের উপ-কমিশনারের (ডিসি) কার্যালয়ে নেয়া হয়।

মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তারের পর তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে ডিসি হারুনুর রশিদ জানান, রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুর পৌনে ১টার দিকে মামুনুল হকের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর মাদ্রাসার চারদিকে অবস্থান নেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। পরে মাদ্রাসার ভেতরে ঢুকে একটি কক্ষ থেকে মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশের তথ্য মতে, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে রিসোর্টে নারী সঙ্গীসহ স্থানীয় লোকজনের হাতে আটক হওয়ার পর ছাড়া পেয়ে ওই রাতেই ঢাকায় আসেন মাওলানা মামুনুল হক। মোহাম্মদপুরের কাদেরাবাদ হাউজিংয়ের নিজ বাসায় না গিয়ে তিনি পাশে জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় যান। এতদিন ধরে সেখানে অবস্থান করছিলেন তিনি।

সুত্র মতে, আগে থেকেই ওই মাদ্রাসায় নজরদারি করছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ওই মাদ্রাসার একটি কক্ষে বসে ফেসবুকে লাইভ বক্তব্য দিয়েছিলেন মামুনুল হক।

পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মামুনুল হকের বিরুদ্ধে রাজধানীর পল্টন, মতিঝিলসহ কয়েকটি থানায় মামলা আছে।

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।