বাবুল-গায়ত্রীর ‘প্রেমের তথ্য’ উপহারের বইয়ে!

বাবুল-গায়ত্রীর ‘প্রেমের তথ্য’ উপহারের বইয়ে!

ডেস্ক রিপোর্ট
বিসিবিনিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম

গায়ত্রী অমর সিং নামে এক এনজিও কর্মকর্তার সঙ্গে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের ‘প্রেম’ ছিল বলে অভিযোগ তুলেছেন তারই নিহত স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন।

গত বুধবার চট্টগ্রামের পাচঁলাইশ থানায় দায়ের করা মামলার এজাহারে এমন অভিযোগ করেন তিনি।

২০১৪-১৫ সালে (কক্সবাজারের সাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) বাবুল আক্তার মিশনে সুদানে যাওয়ার সময় তার একটি মোবাইল ফোন বাসায় রেখে যান। ওই মোবাইল ফোনে গায়ত্রী ২৯ বার বিভিন্ন ম্যাসেজ দেন। ম্যাসেজগুলো দেখে মিতু প্রথম বাবুল-গায়ত্রীর প্রেম সম্পর্কে জানতে পারেন।

মামলার এজাহারে মো. মোশাররফ হোসেন এসব বিষয় তুলে ধরেছেন। মিতু তার ডায়েরিতে এ বিষয়ে লিখে রেখে গেছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

মামলার এজাহারে দাবি করা হয়, বাবুল আক্তার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে কক্সবাজারে থাকার সময় ইউনাইটেড ন্যাশনস হাই কমিশনার ফর রিফিউজিস (ইউএনএইচসিআর) কর্মকর্তা গায়ত্রী অমর সিংয়ের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পড়েন।

পাঁচ বছর আগে স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু হত্যাকাণ্ডের পর তৎকালিন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারই মামলা করেছিলেন। সেই মামলা তদন্তদকারি সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কার্যত বাতিল করে দেয়ার পর বুধবার বাবুল আক্তারকে আসামি করে মামলা করেন মিতুর বাবা মো. মোশাররফ হোসেন।

মিতু হত্যাকাণ্ডে বাবুল আক্তারের জড়িত থাকার ‘তথ্য প্রমাণ’ পাওয়ার কথা জানিয়ে পিবিআই বুধবার তার মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয়ার পরপরই মিতুর বাবা নতুন মামলা করেন। তাতে প্রধান আসামি করেন জামাতা বাবুল আক্তারকে।

বাবুল-গায়ত্রীর ‘প্রেমের তথ্য’ উপহারের বইয়ে!

এই সেই গায়ত্রী অমর সিং

মামলার এজাহারে বলা হয়, ‘তালেবান’ এবং ‘বেস্ট কিপ্ট সিক্রেট’ নামে দুটি বই বাবুলকে উপহার দেন গায়ত্রী। বই দুটিতে গায়ত্রীর সঙ্গে বাবুলের সাক্ষাতের তারিখ ও স্থান লেখা রয়েছে। তারা কোথায় কোথায় দেখা করেছেন, ঘুরতে গেছেন সেসব বিষয় উল্লেখ আছে। প্রথম সাক্ষাতের তারিখও লেখা আছে। ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বর বাবুল ও গায়ত্রীর প্রথম দেখা হয় বলে বইয়ে লেখা রয়েছে।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১৩ সালের ৮ অক্টোবর বাবুল-গায়ত্রী কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতে একসঙ্গে সময় কাটান। এছাড়া ওই বছরের ১২ অক্টোবর তারা একসঙ্গে রামু বৌদ্ধ মন্দিরে ঘুরতে যান। ‘বেস্ট কিপ্ট সিক্রেট’ বইয়ের দ্বিতীয় পাতায় লেখা রয়েছে, ‘উইথ মাই সিনসিয়ার লাভ,- ইউরস গায়ত্রী’।

মো. মোশাররফ হোসেন এজাহারে আরও অভিযোগ করেন, তার মেয়ে মিতু এই ‌‘অনৈতিক সম্পর্কের’ বিষয়ে প্রতিবাদ করলে তাকে শারিরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন বাবুল।

নির্যাতনের বিষয়টি মিতু জানিয়েছিলেন বলে এজাহারে উল্লেখ করেন তার বাবা।

মিতুর বাবার দায়ের করা এই মামলায় বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পাঁচদিনের রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই। মো. মোশাররফ হোসেন তার মামলায় বাবুল আক্তার ছাড়াও সাতজনকে আসামি করেছেন।

২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালতের নির্দেশে মিতু হত্যা মামলা তদন্তের দায়িত্ব পায় পিবিআই। এর আগে সেটি নগর গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করেছিল। তারা প্রায় তিনবছর তদন্ত করে, কিন্তু আদালতে অভিযোগপত্র জমা হয়নি। পরে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালত পিবিআইকে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেন।

২০১৬ সালের ৫ জুন ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে গিয়ে চট্টগ্রাম মহানগরের জিইসি মোড়ের কাছে ওআর নিজাম রোডে খুন হন মাহমুদা খানম মিতু। ছুরিকাঘাত ও গুলি চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়।

এই পোর্টালে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ